শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Weekly Bangladesh নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত

জো বাইডেনের সময় খারাপ যাচ্ছে

ড. আশরাফ উদ্দিন আহমেদ   |   বৃহস্পতিবার, ০১ এপ্রিল ২০২১

জো বাইডেনের সময় খারাপ যাচ্ছে

(দ্বিতীয় অংশ) : ঐতিহাসিক ১.৯ ট্রিলিয়ন করোনাভাইরাস রিলিফ প্রস্তাব রিপাবলিকান দলের সমর্থন ছাড়াই পাশ করানো সম্ভব হলে জো বাইডেনকে বেকায়দায় ফেলার নতুন ইস্যু খুঁজতে থাকে ট্র্যাম্প ও তার অনুসারীরা । দক্ষিণের সীমান্ত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ইমিগ্রেশন পেতে ইচ্ছুক হাজার হাজার অল্প বয়েসী ছেলে-মেয়ে গুয়াতেমেলা , হন্ডুরাস ইত্যাদি সেন্ট্রাল আমেরিকান দেশগুলো থেকে আমেরিকা আসার জন্য আমেরিকা-মেক্সিকো বর্ডারে ভিড় করছে । সমস্যাটাকে মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে রিপাবলিকনা দেখতে চায়নি না কোন কালে ও যদিও কৃষি শ্রমিক , বিশেষত তুলা চাষে তাদের স্বল্প মজুরীতে নিয়োজিত করতে তারাই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে । অথচ , প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ট্র্যাম্পের নেতৃত্বে ও সরাসরি ওস্কানিতে হাউসে মাইনরটি নেতা কেভিন মেক্কারতি (Kevin McCarthy), অ্যারিজোনা কংগ্রেসম্যান অ্যান্ডি বিগস (Andz Biggs), সিনেটর টেড ক্রুজ প্রমুখ নেতারা সীমান্তের এ মরসুমি সমস্যাকে নেতিবাচক ভাবে প্রচার করে জনমত গঠন করতে চাচ্ছে জো বাইডেনের বিপক্ষে । ঐতিহাসিক সত্যকে বেমালুক ভুলে গিয়ে বা পাশ কাটিয়ে গুয়াতেমালার মত দেশ স্প্যানিশ এবং পরবর্তীতে মেক্সিকোর সাথে যুক্তরাষ্ট্রের সংঘাত ও সংকটের সময় কি ভূমিকা রেখেছিল সেসব মনে না রেখে এক ধরনের অনুগ্রহ ও নির্ভরশীল সম্পর্কের জালে সেন্ট্রাল আমেরিকার দেশগুলোকে আটকে রাখতে রিপাবলিকান দল বরাবরই সচেষ্ট থেকেছে।

সত্য কথা হল এ বছরের জানুয়ারী -ফেব্রুয়ারিতে বিগত মাসগুলোর তুলনায়, ইউএস কাস্টম এবং বর্ডার প্রটেকশন এজেনসির হাতে ২৮% বেশী মাইগ্রেন্ট পড়েছে । তবে , এ সরকারের মানবিক ও নমনীয় মনোভাবের চেয়ে মরসুমি কারণেই এ বেড়ে যাওয়ার প্রবণতা মনে করার সংগত কারণ আছে । ২০১৯ এ এ মাসগুলোতে ৩১% অভিবাসন প্রত্যাশী বর্ডারে ভিড় জমিয়েছিল । প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গত বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ ২০২১) সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন , “The truth of the matter is nothing has changed. As many people came – 28% increase in my administration. Thirty-one percent in 2019 before the pandemic in the Trump administration,Ó the president said. It happens every single solitary year. There is a significant increase in the number of people coming to the border in the winter months of January, February, March – every year. জো বাইডেন আংশিক সত্য বলেছেন । ছোট্ট ছেলেমেয়ের সংখ্যা ২০১৯ সালে এ সময়ে ৩১% ছিল এ তথ্য ঠিকই তবে ২০২১ সালে এ সময়ে ৬১ শতাংশ সঙ্গি ছাড়া শিশু-কিশোর যাদের আটক করা হয়েছে (দেখুন, Jane C. Timm , March 25, 2021 in Immigration, Fact Checking Biden on migrant surge during first news conference.) এদের বেশীর ভাগ মেক্সিকোর সাথে যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্যমান চুক্তি -টাইটেল ৪২ এর সুযোগ নিয়ে সেখানে ফেরত পাঠানো হয়েছে । তাই , প্রায় আটক করা ২০,০০০ মাইগ্রেন্টের মধ্যে ফেরত পাঠানোর পরবর্তীতে ২৮% বর্তমানে সীমান্তে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে কালাতিপাত করছে এ তথ্যটি ও সঠিক। বাইডেন এ ব্যাপারে উল্লেখিত সংবাদ সম্মেলনে সত্য কথাই বলেছেন যে ঐসব দেশে বিরাজমান দারিদ্রই মূলত এমন পরিস্তিতির জন্য দায়ী । প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, “The way to start with this problem , and I started to deal with it back when I was vice president, putting together a bipartisan plan of over $700 million to address the root causes of why people are leaving.” (প্রাগুক্ত)।

ট্র্যাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার বছরের মধ্যেই সেন্ট্রাল আমেরিকার দেশগুলোর ৭০০ মিলিয়ন সাহায্য কর্তন করে দেন । অবশ্য ষ্টেট ডিপার্টমেন্ট পরবর্তীতে এসাহায্যের বেশীর ভাগই পুনরায় বলবৎ করে । বল্যইবাহুল্য , ট্র্যাম্পের পূর্বে বারাক ওবামা ও ২০১৪ সালে এ সমস্যা মোকাবেলা করেন। সেন্ট্রাল আমেরিয়ার দেশগুলো, বিশেষত হন্ডুরাস ও গুয়াতেমেলা থেকে এসাইলাম চেয়ে হাজার হাজার ছেলে-মেয়ে পিতামাতার সঙ্গ ছাড়াই সউথেরন বর্ডারে এসে ভিড় জমায় । এর পাঁচ বছর পর ট্র্যাম্পের সময়ের কঠোর নিপাপত্তা বেষ্টনী ও কড়া অভিবাসন আইন থাকা সত্বে ও এ ভিড় কমেনি । ডেমোক্রেট , মানবাধিকার সংস্থা এদের তুমুল আপত্তি সত্ত্বে ও বিভিন্ন ভাবে বর্ডার ডিঙিয়ে আসা মাইগ্রেন্ডদের আটক করে পুশব্যাক সহ নানা ধরনের অমানবিক

অবস্থায় অন্তরীন করে রাখা হয় । ছেলেমেয়েদের মা বাপের কাছে পাঠাতে না পেরে বিভিন্ন তথাকথিত কাস্টডিয়ানের এবং সংস্থার কাছে দেয়া হয় । পরবর্তীতে এদের অনেকেরই নাকি হদিসই পাওয়া যায়নি । ট্র্যাম্পের বিদায়ের দু’ মাসের মধ্যেই বাইডেন ও তার প্রশাসন একই সমস্যায় হিমশিম খাচ্ছে । প্রতিদিন প্রায় পাঁচ হাজার ছেলে মেয়ে বর্ডার পাড়ি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে অনুপ্রবেশ করছে । এদের থাকার ব্যাবস্থা ট্র্যাম্পের সময়ের চেয়ে তেমন ভাল নয় বলে জানা যায় । জো বাইডেন তাঁর প্রথম সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন যে ইমিগ্রেশন ব্যবস্থার সব দিকেরই যুগান্তকারী পরিবর্তন ও সংস্কার আনতে তাঁর সরকার অক্লান্তভাবে কাজ করছে । তবে সঠিক পর্যায়ে আনতে সময় লাগবে । তাঁর নিজের ভাষায়, What were doing right now is attempting to rebuild the system that can accommodate what is happening today, he said. Its going to take time. তিনি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ যে এ উদ্যোগে তিনি সফলকাম হবেনই । তবে , প্রেসিডেন্ট মাইগ্রেন্ট বিষয়ক নীতি নিয়ে ঘরে বাইরে সমালোচিত হচ্ছেন । তাঁর নমনীয় মনোভাব রিপাবলিকানরা ভীষণ অপছন্দ করছে একথা আমরা আগেই বলেছি ।

তাঁর হোমল্যান্ড সিকুউিরিটি সেক্রেটারি আলেহান্ড্রো মেওরকাস (Alejandro Mayorkas) অত্যান্ত খোলামেলাভাবে বলেছেন যে বিগত দুই দশকের যেকোন সময়ের চেয়ে অধিক সংখ্যক মাইগ্রেন্ট এদেশে প্রবেশ করবে । পূর্বেকার প্রশাসনের মতই ক্রাইসিস পর্যায়ে সমস্যাটি নিপতিত হয়েছে একথা না বলে তিনি বলেন, This is not new, he said. We have experienced migration surges before.” নতুন এবং উৎকণ্ঠার বিষয় হল আগতদের সংখ্যা । তীর ভাংগা ঢেউয়ের মত প্রতিদিন সাড়ে পাঁচশোর মত মাইগ্রেন্ট মার্চ মাসের অধিকাংশ দিনগুলোতে বর্ডার পেরিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকছে । প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর হোমল্যানড সিকিউরিটি সেক্রেটারি একসাথে ইংরেজি ও স্প্যানিশ ভাষায় বর্ডার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ঘোষণা করার পর ও অব্যাহত গতিতে মাইগ্রেন্টদের অনুপ্রবেশ ঘটছেই । সমস্যাটি নিয়ে বড়োই দুর্বিপাকে আছেন আমাদের প্রেসিডেন্ট ।

Facebook Comments Box

Posted ৬:০৮ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০১ এপ্রিল ২০২১

Weekly Bangladesh |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

গল্প : দুই বোন
গল্প : দুই বোন

(1133 বার পঠিত)

স্মরণে যাতনা
স্মরণে যাতনা

(644 বার পঠিত)

মানব পাচার কেন
মানব পাচার কেন

(393 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
Dr. Mohammed Wazed A Khan, President & Editor
Anwar Hossain Manju, Advisor, Editorial Board
Corporate Office

85-59 168 Street, Jamaica, NY 11432

Tel: 718-523-6299 Fax: 718-206-2579

E-mail: weeklybangladesh@yahoo.com

Web: weeklybangladeshusa.com

Facebook: fb/weeklybangladeshusa.com

Mohammed Dinaj Khan,
Vice President
Florida Office

1610 NW 3rd Street
Deerfield Beach, FL 33442

Jackson Heights Office

37-55, 72 Street, Jackson Heights, NY 11372, Tel: 718-255-1158

Published by News Bangladesh Inc.