বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪ | ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

Weekly Bangladesh নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত

বাইডেনের রিলিফ ও স্টিমুলাস প্যাকেজ কংগ্রেসে

মোহাম্মদ আজাদ :   |   বৃহস্পতিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বাইডেনের রিলিফ ও স্টিমুলাস প্যাকেজ কংগ্রেসে

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রস্তাবিত স্টিমুলাস ও করোনাভাইরাস প্যাকেজ রিলিফ বিল কংগ্রেসে যাচ্ছে। অপরদিকে বিকল্প প্রস্তাব উত্থাপন করেছে রিপাবলিকানরা। তবে কোন দলের বিল এখনো হাউজে ভোটাভুটির জন্য উত্থাপিত হয়নি। প্রস্তাবিত এই বিল পাশ হলে সরাসরি ২৯ মিলিয়ন সরাসারি উপকৃত হবে। দুই দলের দরকষাকষিতে প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রস্তাবিত স্টিমুলাস ও করোনা ভাইরাস প্যাকেজ রিলিফ বিল জটিল আকার ধারণ করতে যাচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও ডেমোক্রেটদের প্রস্তাবিত প্যাকেজে ব্যয় হবে ১.৯ ট্রিলিয়ন ডলার। অন্যদিকে রিপাবলিকানদের প্রস্তাবিত করোনা ভাইরাস প্যাকেজে ব্যয় হবে মাত্র ৬০৮ বিলিয়ন ডলার। বাইডেন ও ডেমোক্রেটরা চাইছেন বাইপার্টিজান সম্মতিতে বিলটি পাস করা হবে। হাউজে ডেমোক্রেটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে ডেমোক্রেটদের উত্থাপতি যে কোন বিল সহজে পাস হবে। কিন্তু সিনেটে যাওয়ার পর সেখানে বিলটি সহজে পাস হবে না। কারণ সিনেটে উভয় দলের সমসংখ্যক সদস্য রয়েছে। জটিল পরিস্থিতিতে ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিসে একটি ‘টাই ভোট’ দিয়ে হয়তো ডেমোক্রেটরা পার পাবে। কিন্তু তার আগে রিপাবলিকান সিনেটররা যে কোন বিলকে ফিলিবাষ্টার করতে পারবে। ফিলিবাষ্টার হচ্ছে কোন বিলকে আটকে দেয়ার পার্লামেন্টারি পদ্ধতির নাম। ফিলিবাষ্টার রোধ করতে হলে ডেমোক্রেটদের প্রয়োজন হবে তাদের বিলের পক্ষে ১০ জন রিপাবলিকান সিনেটরের সমর্থন আদায়। এজন্য বাইডেন প্রস্তাবিত করোনা ভাইরাস প্যাকেজ রিলিফ বিলটি বাইপার্টিজান বা দুই দলের সমঝোতার ভিত্তিতে পাস করা প্রয়োজন।

এদিকে গত মঙ্গলবার সিএনএন এর এক রিপোর্টে বলা হয়েছে যে রিপাবলিকান প্রস্তাবিত করোনা ভাইরাস স্টিমুলাস প্যাকেজ রিলিফ থেকে কমপক্ষে ২৯ মিলিয়ন আমেরিকান কোন সুবিধা লাভ করতে পারবে না। রিপাবলিকানদের প্রস্তাবিত প্যাকেজে যে ২৯ মিলিয়ন আমেরিকান কোনকিছু পাবে না বাইডেন প্রস্তাবিত প্যাকেজ থেকে সেই ২৯ মিলিয়ন আমেরিকান সব ধরনের সুবিধা লাভ করবে। রিপাবলিকান প্রস্তাবিত করোনা ভাইরাস রিলিফ বিলে বলা হয়েছে যে একক ব্যক্তি যাদের বার্ষিক আয় ৫০ হাজার ডলারের উর্ধে এবং যৌথভাবে পরিবারের আয় এক লাখ ডলারের উর্ধে তারা করোনা ভাইরাস স্টিমুলাস প্যাকেজ থেকে কোন ধরনের সুবিধা লাভ করবে না। রিপাবলিকানদের এই প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন ষ্টে অফ মেইন এর রিপাবলিকান সিনেটর সুজান কলিন্স।

এই প্রস্তাবে প্রায় ৭৮ শতাংশ আমেরিকান পরিবার বা একক ব্যক্তি সুবিধা পাবে। অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রস্তাবিত প্যাকেজ থেকে ৯৫ শতাংশ আমেরিকান সুবিধা পাবে। বাইডেন কংগ্রেসকে বলেছেন যে ২০০০ ডলারের স্টিমুলাস বিল পাস করতে। তবে প্রস্তাবিত ২০০০ ডলার থেকে গত ডিসেম্বর মাসে যে ৬০০ ডলার স্টিমুলাস দেয়া হয়েছে তা কেটে রেখে ১৪০০ ডলার হারে সকল করদাতাকে দেয়া হবে। বাইডেনের প্রস্তাবে আরও বলা হয়েছে যে, একক ব্যক্তি যাদের বার্ষিক আয় ৭৫ হাজার ডলারের নিচে এবং পারিবারিক আয় ১ লাখ ৫০ হাজার ডলারের নিচে তারা করোনা ভাইরাস রিলিফ প্যাকেজের সুবিধার আওতায় পড়বে। রিপাবলিকানদের প্যাকেজ প্রস্তাবে বলা হয়েছে যে একক ব্যক্তির বার্ষিক আয় ৫০ হাজার ডলারের নিচে এবং যৌথ আয় ৮০ হাজার ডলারের নিচে শুধু তারাই করোনা ভাইরাস রিলিফ প্যাকেজের সুবিধা পাবে। এছাড়া রিপাবলিকানদের স্টিমুলাসের অর্থ বাবদ মাত্র ১০০০ ডলার দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে এই ১০০০ ডলারের স্টিমুলাস গত ডিসেম্বরে দেয়া ৬০০ ডলার কেটে রাখার কথা বলা হয়েছে।

গত সোমবার ওভাল অফিসে মেইনের রিপাবলিকান সিনেটর সুজান কলিন্সের নেতৃত্বে ১০ জন রিপাবলিকান সিনেটর প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিসের সাথে সাক্ষাৎ করেন। সভার উদ্দেশ্য ছিল বাইপার্টিজান মতামতের ভিত্তিতে করোনা ভাইরাস স্টিমুলাস রিলিফ প্যাকেজ নিয়ে সমঝোতায় উপনীত হওয়া। সভায় যেমন আশা করা হয়েছিল তার চেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি অথবা সমঝোতাও হয়নি। তা সত্বেও সিনেটর সুজান কলিন্স বলেছেন প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টের সাথে আমাদের আলোচনা ছিল চমৎকার, আন্তরিক ও প্রয়োজনীয়। তিনি বলেন, আমরা হয়তো কোন সমঝোতায় পৌছতে পারিনি। মাত্র দুই ঘন্টার আলোচনায় কোন সমঝোতায় পৌছা সম্ভবও নয়। সিনেটর কলিন্স বলেন, যে কোন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে আমরা কিভাবে একত্রে কাজ কববো তা নিয়ে আরো কথা হবে। সভায় সাংবাদিকদের সরাসরি প্রবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রস্তাবিত ১.৯ ট্রিলিয়ন ডলারের করোনা ভাইরাস রিলিফ প্যাকেজ ও রিপাবলিকানদের প্রস্তাবিত ৬০৮ বিলিয়ন ডলার প্রস্তাবের মাঝে অনেক ফারাক। এই বিশাল ব্যবধানে কিভাবে সমঝোতা হবে এ প্রশ্ন সম্পর্কে সুজান কলিন্স কিছু বলেননি।

এদিকে সিনেট মেজরিটি লিডার চাক শ্যুমার গত সোমবার সিনেট ফ্লোরে বলেছেন, রিপাবলিকানদের অতি ক্ষুদ্র আকৃতির বিলের পরিবর্তে আমরা বড় ধরনের বিল নিয়ে অগ্রসর হচ্ছি। তিনি আরও বলেন, হাউজ অবশ্যই আমাদের বড় আকৃতির বিলকে সমর্থন করবে। এছাড়া গত সোমবার সিনেট মেজরিটি লিডার শ্যুমার ও হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি একটি যৌথ বাজেট প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এ ব্যাপারে চাক শ্যুমার বলেন, রিপাবলিকানদের ফিলিবাস্টার এড়ানোর জন্য এটা হচ্ছে আমাদের প্রথম পদক্ষেপ। তিনি বলেন, ১.৯ ট্রিলিয়ন ডলারের করোনা ভাইরাস রিলিফ প্যাকেজ বিকল্প উপায়ে পাস করানো না গেলে রিপাবিলিকানরা প্রস্তাবিত বিলকে ফিলিবাষ্টার করতে পারে। কবে নাগাদ তাদের প্রস্তাবিত যৌথ বাজেট রেজুল্যুশন বিল আকারে কংগ্রেসে উত্থাপন করা হবে সে সম্পর্কে চাক শ্যুমার কিছু বলেননি।

Posted ১০:০৬ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

Weekly Bangladesh |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বু বৃহ শুক্র
 
১০১১
১৩১৫১৬১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭৩০৩১  
Dr. Mohammed Wazed A Khan, President & Editor
Anwar Hossain Manju, Advisor, Editorial Board
Corporate Office

85-59 168 Street, Jamaica, NY 11432

Tel: 718-523-6299 Fax: 718-206-2579

E-mail: [email protected]

Web: weeklybangladeshusa.com

Facebook: fb/weeklybangladeshusa.com

Mohammed Dinaj Khan,
Vice President
Florida Office

1610 NW 3rd Street
Deerfield Beach, FL 33442

Jackson Heights Office

37-55, 72 Street, Jackson Heights, NY 11372, Tel: 718-255-1158

Published by News Bangladesh Inc.