শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Weekly Bangladesh নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত

সাপ্তাহিক বাংলাদেশ’র বর্ণাঢ্য আয়োজন, যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

বাংলাদেশ রিপোর্ট :   |   বৃহস্পতিবার, ০৮ জুলাই ২০২১

সাপ্তাহিক বাংলাদেশ’র বর্ণাঢ্য আয়োজন, যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ খান।

বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিধর ও বড় গণতান্ত্রিক দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দীর্ঘ টানা ৮ বছর ৪মাস দু’ সপ্তাহ ১দিন মুক্তিযুদ্ধের পর ব্রিটেনের তৎকালীন ১৩টি কলোনী পরাধীনতার নাগপাশ ছিন্ন করে। ১৭৭৬ সালের ৪ জুলাই ঘোষণা করে আনুষ্ঠানিক স্বাধীনতা। জন্ম হয় নূতন আমেরিকান জাতির। গত ৪ জুলাই রোববার ছিলো আমেরিকার ২৪৫তম স্বাধীনতা দিবস। স্বাধীনতা দিবসের এ উৎসবে অংশীদার হতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সাপ্তাহিক বাংলাদেশ। গত ৪ জুলাই জ্যামাইকাস্থ সাপ্তাহিক বাংলাদেশ কার্যালয়ের সামনে ১৬৮ স্ট্রিটে (জেএমসিওয়ে) খোলা আকাশের নীচে স্থাপন করা হয় সুসজ্জিত ডিজিটাল মঞ্চ। সাপ্তাহিক বাংলাদেশ আয়োজিত দ্বিতীয়বারের এ উৎসব আয়োজনের সহযোগী ছিলো জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি। বিশেষ সহযোগিতায় ছিলো জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার।

পড়ন্ত বিকেলে চমৎকার আবহাওয়ায় ৫টার পর জন সমাগম শুরু হয়ে যায় অনুষ্ঠানস্থল। বিশাল এলইডি স্ক্রীনে আতশবাজির শব্দ সহ ভেসে উঠে আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধের ঐতিহাসিক প্রামাণ্য চিত্র। জমতে থাকে ঝালমুড়ি চা’র আড্ডা। অপরদিকে চলতে থাকে বারবিকিউ পার্টি। সন্ধ্যা ৭টায় মূল মঞ্চে শুরু হয় আনুষ্ঠানিক কর্মসূচী। ফোর্থ অব জুলাইয়ের এবারের উৎসবে ছিলো বারবিকিউ, নিউইয়র্ক সিটিতে প্রথমবারের মতো ডেমোক্রেটিক প্রাইমারীতে নির্বাচিত বাংলাদেশী দু’নারী এটর্নি সোমা সাঈদ ও শাহানা হানিফের সংবর্ধনা এবং আতশবাজি।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান। কোরআন তেলাওয়াত করেন হাফেজ সাজ্জাদ। বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন জেএমসি’র খতিব ও ইমাম মওলানা মির্জা আবু জাফর বেগ। প্রবাসের বিশিষ্ট উপস্থাপক আশরাফুল হাসান বুলবুলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ও নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি ডা. ওয়াজেদ এ খান। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার। এরপর সদ্য অনুষ্ঠিত নিউইয়র্কের ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রাইমারী নির্বাচনে বেসরকারীভাবে ব্রুকলীনের কাউন্সিল ডিষ্ট্রিক্ট-৩৯ থেকে শাহানা হানিফ-কে ডা. বুশরা ওয়াজেদ, কুইন্স কাউন্টির জজ পদে জয়ী এটর্নী সোমা সাঈদ-কে মাহিয়া শুভ্র এবং ষ্টেট সিনেটর জন ল্যু-কে ইয়াফিজ ইসলাম ফুলের তোড়া দিয়ে অভিনন্দন জানান হয়।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্কের ষ্টেট সিনেটর জন ল্যু, ষ্টেট অ্যাসেম্বলীম্যান ডেভিড আই ওয়েপ্রীন, সাবেক এমপি ও সাপ্তাহিক ঠিকানা’র চেয়ারম্যান/ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এম এম শাহীন, মূলধারার রাজনীতিক মোর্শেদ আলম, সিটি নির্বাচনে প্রাইমারীতে বিজয়ী শাহানা হানিফ ও সোমা সাঈদ, ডেমোক্র্যাট পার্টির কুইন্স ডিষ্ট্রিক্ট এট লার্জ এটর্নী মঈন চৌধুরী, জেএমসি’র সেক্রেটারী মনজুর আহমেদ চৌধুরী। ফ্রেন্ডস সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আল আমীন রাসেল, প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, উপদেষ্টা সালেহ আহমেদ, বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী ও ডিষ্ট্রিক্ট ২৪ থেকে কাউন্সিলম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মোহাম্মদ সাবুল উদ্দিন, অধ্যাপক শাহাদাত হোসেন, জূরকার হায়দার, আবু নাসের মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর মাহমুদ, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সিদ্দিকী, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম, মূলধারার রাজনীতিক গিয়াস আহমেদ, ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, সাবেক প্রধান উপদেষ্টা নাসির আলী খান পল, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আল আমীন রাসেল, ডিষ্ট্রিক্ট ২৪ থেকে কাউন্সিলম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মোহাম্মদ সাবুল উদ্দিন প্রমুখ।

স্বাগত বক্তব্যে সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডাঃ ওয়াজেদ এ খান স্বাধীনতা দিবসের উৎসবে আগত অতিথি ও দর্শক শ্রোতাদের অভিনন্দন জানান। বিশেষভাবে অভিনন্দিত করেন গত ২২জুনের ডেমোক্রেটিক প্রাইমারীতে বিজয়ী নিউইয়র্ক সিটির কুইন্স কাউন্টি সিভিল কোর্টের বিচারক পদে এটর্নী সোমা সাঈদ ও সিটি কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট ৩৯ থেকে নির্বাচিত শাহানা হানিফকে। এদের দু’জনই বেসরকারীভাবে নির্বাচিত বলে ঘোষিত হয়েছেন।

ডাঃ খান বলেন, এটর্নি সোমা এবং শাহানা হানিফ বাংলাদেশী আমেরিকানদের গর্ব। যুক্তরাষ্ট্রে তারা ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। তাদের দু’জনেই বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত এবং প্রথম সাউথ এশিয়ান মুসলিম নারী। রাজনীতিতে তারা অনেক দূর এগিয়ে যাবেন বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন ডাঃ ওয়াজেদ এ খান। অনুষ্ঠানের সহযোগী সংগঠন, জেএমসি, নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগ, সকল পৃষ্ঠপোষক এবং স্বেচ্ছাসেবকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। ডাঃ খান বলেন, সাপ্তাহিক বাংলাদেশ কমিউনিটির নির্ভিক মুখপত্র। তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য সাপ্তাহিক বাংলাদেশ’র প্রশংসা করেন। তিনি আন্তরিক অভিনন্দন জানান এটর্নি সোমা সাঈদ ও শাহানা হানিফকে তাদের অভাবনীয় বিজয়ের জন্য। বাংলাদেশী কমিউনিটিতে যুব সমাজে অবক্ষয়ের বিষয়টি উল্লেখ করে এ ব্যাপারে অভিভাবক সহ সকলকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান। বিশেষ করে মাদকের ছোবল থেকে যুব সমাজকে বাঁচাতে।

কুইন্স কাউন্টি সিভিল কোর্টের বিচারক হিসেবে ডেমোক্রেটিক প্রাইমারিতে নির্বাচিত এর্টনি সোমা সাঈদ তার সংগ্রামী জীবনের কথা তুলে ধরেন। আগামী নভেম্বর অনিুষ্ঠিতব্য জেনারেল ইলেকশনে ভোট দিয়ে চুড়ান্তভাবে নির্বাচিত করার এবং নতুন প্রজন্মকে মূলধারার রাজনীতিতে উৎসাহিত করার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

গত ২২ জুনের ডেমোক্রেটিক প্রাইমারিতে বিজয়ী করার জন্য ধন্যবাদ জানান ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বাংলাদেশী আমেরিকান কমিউনিটির প্রতি। বাংলাদেশী কমিউনিটির জন্য কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

সিটি কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-৩৯ ব্রুকলীন থেকে ডেমোক্রেটিক প্রাইমারিতে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত শাহানা হানিফ আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান তাকে সংবর্ধিত করার জন্য। বনেদী নয় ব্রুকলীনের এমন একটি প্রতিবেশ থেকে কিভাবে তিনি আজকের পর্যায়ে উঠে এসেছেন তা জানান দর্শক শ্রোতাদের। পরিবারে সন্তানদের বেড়ে উঠা এবং তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে অভিভাবকদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান শাহানা হানিফ। শাহানা- বলেন, আমাদের বিজয় বাংলাদেশী কমিউনিটির বিজয়। এই বিজয় ধরে রাখতে হবে। যেকোন নির্বাচনে ভোটে অংশ নিতে হবে। ভোট ছাড়া গণতন্ত্র সুসংহত হয় না, অধিকার প্রতিষ্ঠা করা যায় না। নিউইয়র্কে জন্ম এবং বেড়ে উঠা শাহানা চমৎকার বাংলায় বক্তব্য রেখে অবাক করে দেন সবাইকে। তার স্বপ্ন সাধারণ অবহেলিত মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাওয়ার। এজন্য তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন।

নিউইয়র্ক স্টেট সিনেটর জন ল্যু নিউইয়র্ক সিটির স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে সোমা সাঈদ ও শাহানা হানিফের বিজয়কে বাংলাদেশী কমিউনিটির জন্য ঐতিহাসিক মাইল ফলক বলে উল্লেখ করেন। মূল ধারার রাজনীতিতে বাংলাদেশীদের অংশ গ্রহণকে আশাব্যঞ্জক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সেক্রেটারী মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী সাপ্তাহিক বাংলাদেশ আয়োজনকে ব্যতিক্রমধর্মী বলে মন্তব্য করেন। ১৬৮ স্ট্রিট (জেএমসিওয়েতে) অনুষ্ঠান করার অনুমতি প্রদানের জন্য নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ ও ১০৭ প্রিসিঙ্কটের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সেক্রেটারী সৈয়দ আল আমিন রাসেল অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষক এবং স্বেচ্ছাসেবকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং ধন্যবাদ জানান।

অন্যান্য বক্তাগণ, আমেরিকার স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে সাপ্তাহিক বাংলাদেশ’র চমৎকার আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তারা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র আমাদের দেশ। এই দেশ আমাদের যেমন সবকিছু দিয়েছে তাই এই দেশের জন্য আমাদের করনীয় রয়েছে। আগামীতে আরো বৃহৎ আকারে স্বাধীনতা দিবস তথা ফোর্থ জুলাই’র অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। তারা বেসরকারীভাবে নির্বাচিত শাহানা হানিফ ও সোমা সাইদ-কে অভিনন্দন জানান। বক্তাগণ সোমা সাঈদ ও শাহানা হানিফের জয়লাভে নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে অংশ নেন বাংলাদেশী আমেরিকান কমিউনিটির বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ। মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সাপ্তাহিক পরিচয় সম্পাদক নাজমূল আহসান, সাপ্তাহিক প্রবাস সম্পাদক ও আমেরিকা বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ সাঈদ, সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারী মনোয়ারুল ইসলাম, ঠিকানার বার্তা সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, ভয়েস অব আমেরিকার প্রতিনিধি আকবর হায়দার কিরণ, বাংলা ভিশনের নীহার সিদ্দিকী, বিশিষ্ট ফটো সাংবাদিক সানাউল হক সহ অনেকে।

মূলধারার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও অনুষ্ঠানে সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠানটি হয়ে উঠে উৎসবমুখর। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠাস্থলে আলোক সজ্জাও করা হয়।

উৎসবের বিশেষ আকর্ষন : ফোর্থ জুলাইয়ের উৎসবের বিশেষ আকর্ষন ছিলো তাক লাগানো ও চোখ ধাঁধানো আতশবাজি, ডিজিটাল পর্দায় যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সঙ্গীত ও দেশাত্নবোধক গান পরিবেশন, আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রামাণ্য চিত্র, এলিস আইল্যান্ডে অভিবাসীদের আগমনের প্রামাণ্য চিত্র ও মজাদার বারবিকিউ। বিকেল ৫টার পর থেকে অনুষ্ঠানস্থলে আসতে থাকে নারী পুরুষ ও শিশুরা। অনুষ্ঠানে তরুণ প্রজন্মের অংশগ্রহণ ছিলো চোখে পড়ার মতো। রাস্তার মাঝখানে ডিজিটাল মঞ্চের পর্দায় ভেসে উঠে আতশবাজির বর্ণিল চিত্র। সন্ধ্যার পর মূল মঞ্চে অতিথিগণ যখন কথা বলছিলেন তখন অনুষ্ঠান স্থলের পাশে চলে মুর্হুমূহ আতশবাজি। পুরো এলাকা ঝলকে উঠে। আকাশের দিকে ছুড়া আতশবাড়ি বিচ্ছুড়িত হয়ে আছড়ে পড়ে নীচের দিকে। এসময় ভিন্নমাত্রায় আমেজ সৃষ্টি হয়। বিপুল সংখ্যক দর্শক শ্রোতা মোহনীয় এ দৃশ্য উপভোগ করেন আনন্দভরে।

বিশাল ডিজিটাল পর্দায় প্রদর্শিত স্বাধীনতার প্রামাণ্য চিত্র বাংলাদেশী কমিউনিটিতে এবারই প্রথম। এসময় পর্দায় দেখানো হয় অনুষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদেরকে। আকর্ষনীয় ভিডিওটি সংকলন করেন জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সহ সাধারণ সম্পাদক রিজু মোহাম্মদ। বারবিকিউ ছিলো এ উৎসবের অন্যতম অনুসঙ্গ। অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সবাই ঝালমুড়ি ও চা নিয়ে বসে পড়েন। অনেকে সাপ্তাহিক বাংলাদেশ কার্যালয়ের সামনের সবুজ ঘাসের চত্বরে মেতে উঠেন আড্ডায়। সবাই খাবার গ্রহণ করেন লাইন ধরে। সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে খাবার পর্ব। সাবুল উদ্দিন, আমিনুল ইসলাম চুন্নু ও জুলকার হায়দারের তত্ত্বাবধানে চলে বারবিকিউ পার্টি। প্রতিটি খাবার ও পানীয়ের জন্য ছিলো পৃথক কর্ণার। বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন বারবিকিউতে। যাকাত ফাউন্ডেশন শিশুদের জন্য চিপস ও জুস এবং বড়দের জন্য মাস্ক বিতরণ করে। এছাড়া হ্যান্ডটেক মাস্ক বিতরণ করে। অনুষ্ঠানস্থলের প্রবেশ পথে ছিলো কভিড টেস্টেও ব্যবস্থা। স্বাধীনতা দিবসের এ অনুষ্ঠানে কার্যত পরিণত হয় মহা-মিলন মেলায়। রাত সোয়া ১০টায় আনুষ্ঠানিকতার সমাপ্তি ঘটলেও উৎসবের আমেজ অব্যাহত ছিল মধ্যরাত পর্যন্ত।

Facebook Comments Box

Posted ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৮ জুলাই ২০২১

Weekly Bangladesh |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
Dr. Mohammed Wazed A Khan, President & Editor
Anwar Hossain Manju, Advisor, Editorial Board
Corporate Office

85-59 168 Street, Jamaica, NY 11432

Tel: 718-523-6299 Fax: 718-206-2579

E-mail: weeklybangladesh@yahoo.com

Web: weeklybangladeshusa.com

Facebook: fb/weeklybangladeshusa.com

Mohammed Dinaj Khan,
Vice President
Florida Office

1610 NW 3rd Street
Deerfield Beach, FL 33442

Jackson Heights Office

37-55, 72 Street, Jackson Heights, NY 11372, Tel: 718-255-1158

Published by News Bangladesh Inc.