রবিবার ২০ জুন ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Weekly Bangladesh নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত

বাড়ছে ডিজিটাল কেনাকাটা

বাংলাদেশ অনলাইন ডেস্ক :   |   সোমবার, ২৯ জুন ২০২০

বাড়ছে ডিজিটাল কেনাকাটা

এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভোক্তারা ডিজিটাল কমার্স বা প্রযুক্তিভিত্তিক বাণিজ্যের দিকে ঝুঁকছে। মাস্টারকার্ডের এক গবেষণায় দেখা গেছে, ভোক্তারা দোকানে গিয়ে কেনাকাটা করার চেয়ে অনলাইনে আগ্রহী হয়ে উঠেছে। ডিজিটাল প্রযুক্তির সুবিধায় প্রচলিত কেনাকাটার ধরন বদলে যাচ্ছে। মূলত করোনার প্রাদুর্ভাবে ডিজিটাল মাধ্যমে কেনাকাটার হার আরও বেড়েছে। এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভোক্তারা মুদি পণ্য থেকে শুরু করে সিনেমার ডিভিডি সব কিছুই প্রযুক্তিভিত্তিক উপায়ে অর্থাৎ অনলাইনে কেনার প্রতি ঝুঁকে পড়েছেন। করোনা মহামারি কেটে গেলেও ডিজিটাল উপায়ে কেনাকাটার এই অভ্যাস স্থায়ী রূপ পেয়ে যেতে পারে। মাস্টারকার্ডের এক গবেষণায় এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

কভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবের পরিস্থিতিতে মানুষের মধ্যে যেমন উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বেড়েছে তেমনি সংক্রমণের ভয়, লকডাউনের প্রভাব ও ক্রেতার অভাবে অনেক স্টোর বা দোকান বন্ধ হয়ে গেছে। অথচ এমন কঠিন সময়েও চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ডিজিটাল কমার্স বা অনলাইনভিত্তিক কেনাবেচার পরিমাণ ২০ শতাংশ বেড়েছে। সেলসফোর্স শপিং ইনডেক্সে এই তথ্য উঠে এসেছে।

বিশেষ করে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ের ই-কমার্সমুখী হওয়া এবং অনলাইনে লেনদেন করার বিষয়ে জোর দেওয়ার বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। গবেষণায় দেখা গেছে, এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ায় ৩০ শতাংশ, ভারতে ৪৯ শতাংশ, চীনে ৫৫ শতাংশ ও জাপানে ৩৪ শতাংশ মানুষ ই-কমার্স মানে অনলাইনে কেনাকাটা করার পরিকল্পনার কথা জানান। একই সময়ে অস্ট্রেলিয়ায় ৩৮ শতাংশ, ভারতে ৬৮ শতাংশ, চীনে ৫৭ শতাংশ ও জাপানে ৪০ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন যে তারা আজকাল স্টোর বা দোকানে গিয়ে কেনাকাটার কথা খুব কমই ভাবছেন। বিশ্বব্যাপী প্রতি ১০ জনের মধ্যে ছয়জনই জানান, তারা বর্তমান করোনাকালে গতানুগতিক ধারা ছেড়ে স্থায়ীভাবে অনলাইনভিত্তিক লেনদেন করতে চান। আর প্রায় অর্ধেক ভোক্তা মনে করেন, করোনা-পরবর্তী সময়ে সনাতনী পদ্ধতির লেনদেনের জায়গাটি নিয়ে নেবে অনলাইনভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম।

সার্বিকভাবে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ৪৬ শতাংশ ভোক্তাই জানান, তারা সচরাচর নগদবিহীন লেনদেন বা অনলাইনে লেনদেন সম্পাদন করে থাকেন। বিভিন্ন দেশে এই হার হলো- অস্ট্রেলিয়ায় ৫২ শতাংশ, ভারতে ৪৯ শতাংশ, চীনে ৪৩ শতাংশ এবং জাপানে ৪১ শতাংশ। মাস্টারকার্ডের গত এপ্রিল মাসে পরিচালিত এই বৈশ্বিক গবেষণায় বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী ৭৯ শতাংশ এবং এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ৯১ শতাংশ ভোক্তা ডিজিটাল উপায়ে পণ্য-সেবা কিনে থাকেন। নিরাপত্তা বিবেচনায় বিশ্বব্যাপী ৭৪ শতাংশ এবং এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ৭৫ শতাংশ ভোক্তা জানান, তারা করোনাকালের পরেও নগদবিহীন অর্থাৎ কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন অব্যাহত রাখতে চান।

মাস্টারকার্ডের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট সন্দীপ মালহোত্রা বলেন, আমরা এখন ডিজিটাল কমার্স অর্থাৎ প্রযুক্তিনির্ভর বাণিজ্যে ঝুঁকে পড়ছি। মানুষ নিরাপত্তা ও সুবিধার কথা বিবেচনা করে এখন প্রযুক্তিভিত্তিক লেনদেনে অভ্যস্ত হয়ে উঠছে। ফুড ডেলিভারি ও মুদি পণ্য কেনা থেকে শুরু করে টেলিমেডিসিন, কনফারেন্স আয়োজন, ফিটনেস কোর্স, লার্নিং এবং বিনোদন সব পণ্য-সেবাই নিজেদের চাহিদা অনুযায়ী ঘরে বসেই পেতে চান তারা। মানুষের এই চাহিদা ও প্রত্যাশা কভিড-১৯ শেষ হওয়ার অনেক পরেও অব্যাহত থাকবে এবং তা অনলাইন বা ই-কমার্সের মাধ্যমে সম্পন্ন করার ঝোঁক ও প্রবণতা জোরালো হবে।

Facebook Comments Box

Posted ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ২৯ জুন ২০২০

Weekly Bangladesh |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
Dr. Mohammed Wazed A Khan, President & Editor
Anwar Hossain Manju, Advisor, Editorial Board
Corporate Office

85-59 168 Street, Jamaica, NY 11432

Tel: 718-523-6299 Fax: 718-206-2579

E-mail: weeklybangladesh@yahoo.com

Web: weeklybangladeshusa.com

Facebook: fb/weeklybangladeshusa.com

Mohammed Dinaj Khan,
Vice President
Florida Office

1610 NW 3rd Street
Deerfield Beach, FL 33442

Jackson Heights Office

37-55, 72 Street, Jackson Heights, NY 11372, Tel: 718-255-1158

Published by News Bangladesh Inc.