শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১ | ৬ কার্তিক ১৪২৮

Weekly Bangladesh নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত
নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত

র‌্যাংকিং চয়েজ ভোটিং

এ কে এম নূরুল হক   |   বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১

র‌্যাংকিং চয়েজ ভোটিং

পছন্দ-তালিকা ভোটিং বা র‌্যাংকিং চয়েজ ভোটিং সংক্ষেপে আরসিভি পদ্ধতি ভোট প্রদানের ক্ষেত্রে একেবারে নতুন একটি বিষয়। এই পদ্ধতিতে আপনি আপনার পছন্দের একাধিক প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন। এই পদ্ধতিটি এবারই প্রথম আমেরিকায়, একেবারে আমাদের শহরে অনুসরণ করা হচ্ছে। যতদূর জানা যায় আমেরিকার অন্যতম অঙ্গরাজ্য মেইন এর স্টেট লেবেলে প্রথম এই পদ্ধতিটি ব্যবহৃত হয়েছে। তবে পৃথিবীর অনেক উন্নত দেশে যেমন অষ্ট্রেলিয়া ও ডেনমার্কে এই পদ্ধতিটির প্রচলন রয়েছে।

নভেম্বর ২০১৯ সালে নির্বাচনের সময় ৭৩% ভোটারদের অনুমোদনের ভিত্তিতে নিউ ইয়র্কে এই পদ্ধতিটি গৃহীত হয়েছে। আমি মনে করি এই র‌্যাংকিং চয়েজ ভোটিং ভোটিং (জঈঠ) মহিলা ও মাইনরিটি গ্রপের সদস্যদেরকে এগিয়ে আসতে উৎসাহিত করবে এবং তাঁদের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করবে। আইনটি অনুমোদনের পর আগামী ২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ অনুষ্ঠেয় কুইন্সের ডিস্ট্রিক ২৪ এর বিশেষ নির্বাচনে প্রথমবারের মত ব্যবহৃত হতে যাচ্ছে। অনেকের ধারনা এই ডিস্ট্রিকে অনেক বাঙালি ভোটার রয়েছেন? অনলাইন থেকে প্রাপ্ত ডাটা থেকে দেখা যায়, এখানে ৫১% সাদা, ২০% হিস্পানিক, ১৮% এশিয়ান ও ১১% কালো। শুধু বাঙালির শতকরা হার জানা নেই? তবে বাঙালি প্রার্থী রয়েছেন চার জন! অনেকেই মনে করেন এক জন প্রার্থী হলে হয়তবা বাঙালি প্রার্থী ভাল ফলাফল করতে পারতেন! প্রার্থীরা চষে বেড়াচ্ছেন সর্বত্র, নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ভোটারা ততই কনফিউজ হচ্ছেন? প্রায় প্রতিদিনই বন্ধুবান্ধব ও জানা-শোনা ভোটারদের ফোন কল পাচ্ছি। সবার ভিতরেই এক ধরণের আগ্রহ আছে, তবে তাঁরা কম্যুনিটির বিভক্তি দেখে আশাহত। মজার ব্যপার, অনেকে জানতে চেয়েছেন জঈঠ পদ্ধতিতে বাংলাদেশের গ্রামে-গঞ্জে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার নির্বাচনের মত সিঙ্গেল ভোট দেয়া যাবে কি না? তাই বিষয়টি নিয়ে বাংলায় লিখার তাগিদ অনুভব করেছি। সেই তাগিদ আর অনুসন্ধানে মনে হয়েছে আসলেই এটা বাংলাদেশের ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার নির্বাচনের মতই। আসুন, জেনে নেই।

তবে প্রথমেই বলে রাখি কেন এই বিশেষ নির্বাচন? বর্তমান কাউন্সিল মেম্বার ররি ল্যান্সম্যান তাঁর দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ হবার আগেই স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করে সরকারী চাকুরী নিয়েছেন। অন্যদিকে এই এলাকার তিনবারের (২০০২-২০১৩) অত্যন্ত সফল ও জনপ্রিয় প্রাক্তন কাউন্সিল মেম্বার জিম জেনারো গভর্নর এন্ড্রু কুমোর অধীনে সরকারী চাকুরী ছেড়ে পুনরায় এই পদে লড়ছেন। জিম জেনারো এবং ররি ল্যান্সম্যান দুজনই নিউ ইয়র্ক ষ্টেট গভর্নর এন্ড্রু কুমোর খুবই ঘনিষ্ট। পুরো বিষয়টি আমার কাছে একটু রহস্যজনক মনে হচ্ছে? এটি আমার ব্যাক্তিগত ধারনা মাত্র। যাইহোক, প্রার্থীরা থেমে নেই, থেমে নেই বাঙ্গালী প্রার্থীরাও। প্রায় আট জন প্রার্থীর নাম ব্যালটে উঠেছে যার চার জনই বাংলাদেশি। শেষ নামের আদ্যাক্ষর অনুযায়ী প্রার্থীরা হলেন দিপ্তী শর্মা, দিলীপ নাথ, জেমস জেনারো, মাইকেল ব্রাউন, মৌমিতা আহমেদ, মুজিব রহমান, নীতা জাইন ও সোমা সাইদ। আর মাত্র ৮ দিন পরই এই বিশেষ নির্বাচন। এই বিশেষ নির্বাচনের পর আশা করা যাচ্ছে নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র, পাবলিক এডভোকেট, কম্পট্রোলার, বরো প্রেসিডেন্ট ও সিটি কাউন্সিল নির্বাচনেও এই পছন্দ-তালিকা ভোটিং পদ্ধতিতে অনুসরণ করা হবে। সেই দিক থেকে ডিস্ট্রিক ২৪ এর নির্বাচনটি হচ্ছে একটি লিটমাস টেস্টের মত।

যাইহোক, মূল আলোচনায় ফিরে আসি। আগেই উল্লেখ করেছি এই পদ্ধতিতে এক জন ভোটার তাঁর পছন্দের পাঁচ জন প্রার্থীদের ভোট দিতে পারবেন। এই পদ্ধতিতে যে প্রার্থী ৫০% এর অধিক ভোট পেয়ে সর্বোচ্চ ভোট পাবেন তিনিই বিজয়ী হবেন। যদি কোন প্রার্থীই ৫০% এর অধিক ভোট না পান, তাহলে কেউই বিজয়ী হবেনা। সেক্ষেত্রে পঞ্চম প্রার্থীকে নির্বাচনী দৌড় থেকে বিদায় নিতে হবে এবং এই প্রার্থীর ভোটে পুনরায় নির্বাচন হবে। এভাবে যতক্ষণ কোন প্রার্থী কাংখিত ৫০% এর অধিক ভোট পেয়ে সর্বোচ্চ ভোট না পান, ততক্ষণ পর্যন্ত এই প্রক্রিয়া চলতে থাকবে। মনে রাখতে হবে যে এই পদ্ধতিতে ৫০% হচ্ছে কাংখিত নাম্বার। অর্থাৎ, বিজয়ী হবার জন্য দুইটি শর্ত পূরণ করতে হবে – প্রথমত ৫০% ভোট পেতে হবে, দ্বিতীয়ত সর্বোচ্চ ভোট পেতে হবে।
উদাহরণ হিসাবে ধরুন, আলোচ্য নির্বাচিত এলাকার মোট প্রাপ্ত ভোটার সংখ্যা ২৫০০০। একটি পদের জন্য মোট ৫ জন প্রার্থী রয়েছেন। নিচের দৃশ্যপট দুটিতে আমি ব্যাখ্যা করব কিভাবে র‌্যাংকিং তালিকা ভোটিং কাজ করে। ধরে নেয়া যাক, নির্বাচনের দিন রাতে ৫ জন প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোটের ফলাফল নিম্নরূপ :

দৃশ্যপট – ১ নির্বাচনের দিন প্রাপ্ত খসড়া ফলাফল নিম্নরূপ

প্রার্থী          প্রাপ্ত ভোট               শতকরা হার
প্রার্থী -১     ২,৩০০                     ৪৬%
প্রার্থী -২     ৯৫০                        ১৯%
প্রার্থী -৩     ৭৫০                        ১৫%
প্রার্থী -৪      ৬০০                       ১২%
প্রার্থী-৫       ৪০০                        ৮%

দৃশ্যপট-১ এ দেখা যাচ্ছে নির্বাচনের প্রথম দফায় কোন প্রার্থীই কাংখিত ৫০% ভোট অর্জন করতে পারেনি। ফলে কোন প্রার্থীই বিজয়ী হতে পারেননি। অতএব, পছন্দ-তালিকা ভোটিং এর নিয়মানুযায়ী পঞ্চম প্রার্থীকে সরে দাঁড়াতে হবে এবং তাঁর প্রাপ্ত ৪০০ ভোটের উপর বাকী চার জন প্রার্থী দ্বিত্বীয় দফায় প্রতিদন্ধীতা করবেন।

এবার ধরা যাক, দ্বিতীয় দফায় প্রথম টালির পঞ্চম প্রার্থীর প্রাপ্ত ৪০০ ভোটের ফলাফলে প্রার্থী- ১ পেয়েছেন ২৫০ ভোট, প্রার্থী-২ পেয়েছেন ৫০ ভোট, প্রার্থী- ৩ পেয়েছেন ৫০ ভোট এবং প্রার্থী- ৪ পেয়েছেন ২৫০ ভোট এবং ৪ জন প্রার্থীর দ্বিতীয় টালির প্রাপ্ত ফলাফল নিম্নরূপঃ

দৃশ্যপট- ২ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে প্রাপ্ত খসড়া ফলাফল নিম্নরূপ

প্রার্থী             প্রাপ্ত ভোট           শতকরা হার
প্রার্থী – ১        ২৫৫০                ৫১%
প্রার্থী –           ২ ১০০০              ২০%
প্রার্থী – ৩       ৮০০                   ১৬%
প্রার্থী – ৪       ৬৫০                   ১৩%

দৃশ্যপট – ২ এ দেখা যাচ্ছে নির্বাচনের দ্বিতীয় টালিতে প্রার্থী-১ পছন্দ-তালিকা ভোটিং এর শর্তানুযায়ী কাংখিত ৫০% ভোট অর্জন করে সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন। ফলে তিনিই বিজয়ী।

পূর্ব কথাঃ ব্যালট পেপার পূরণ করার সময় প্রথমেই আপনার পছন্দের ১ম প্রার্থীকে তাঁর নামের ডান পাশের প্রথম কলামের গোলাকার ঘরটি পূরণ করুন। এভাবে ২য়, ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম গোলাকার ঘরগুলো প্রতি কলাম থেকে একটি করে পূরণ করে পছন্দ-তালিকা ভোটিং সম্পন্ন করতে হবে। আপনি চাইলে শুধু আপনার পছন্দের এক জন প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বাকী গোলাকার ঘরগুলো ফাঁকাও রাখতে পারেন। তবে একাধিক প্রার্থীকে একই (ংধসব)পছন্দ বা চয়েস দিতে পারবেন না।তাহলে আপনার ভোট বাতিল হয়ে যাবে। পছন্দ-তালিকা ভোটিং এর মূল উদ্দেশ্য হল সবগুলো কলাম পূরণ করে পছন্দ-তালিকা তৈরী করা। যদি ১ম টালিতে বা গণনায় আপনার প্রার্থী ৫ম স্থানে থাকে তবে আপনার প্রার্থীকে সরে দাঁড়াতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনার ১ম পছন্দও বাতিল হয়ে যাবে, কিন্তু ২য়, ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম পছন্দ বলবত থাকবে। আবার আপনি যদি একই প্রার্থীকে ১ম থেকে ৫ম সকল কলামের ঘরে পূরণ করেন, সেক্ষেত্রে আপনার ১ম পছন্দ ঠিক থাকবে এবং বাকী কলামগুলো ফাঁকা হিসাবে গণ্য হবে। অতএব, খেয়াল রাখতে হবে আপনার মূল্যবান ভোটটি যেন বিফলে না যায়?

দৃশ্যপট – ৩ (ক)               দৃশ্যপট – (খ)
Can                                     irs

দৃশ্যপট-৩ (ক) বামে প্রার্থীদের নাম ও ডানে পাঁচটি পছন্দ তালিকা আলাদা আলাদা কলামে দেখানো হয়েছে। লক্ষ্য করুন, প্রতি কলামে একটি গোলাকার (oval)) ঘর পূরণ করা হয়েছে। এটিই হচ্ছে সঠিক পদ্ধতি।

দৃশ্যপট-৩ (খ) পছন্দ-তালিকা ভোটিং পদ্ধতির আরো একটি সুবিধা হচ্ছে যে আপনি নিজের প্রার্থীর নাম নিজে লিখেও ভোট দিতে পারবেন। এটাকে লিখন পদ্ধতি (Write-in) বলা হয়। ধরুন, কোন কারণে আপনার প্রার্থীর নাম ব্যালটে ছাপা হয়নি। সেক্ষেত্রে আপনি রাইট ইন ক্যান্ডিডেট বক্সে আপনার সেই প্রার্থীর নাম লিখে পছন্দ-তালিকা নির্ধারণ করতে পারবেন এবং সেটি বৈধ ভোট হিসাবে গণনা কয়রা হবে।

করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনায় রেখে গ৩ ২৩ জানুয়ারি থেকে আগাম ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে, চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। ভোট প্রদান করা আপনার আমার নাগরিক অধিকার। আসুন, এই অধিকার প্রয়োগ করি। নির্বাচন সংক্রান্ত যেকোন তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন ১-৮৬৬ vote-NYC (১-৮৬৬-৮৬৮-৩৬৯২), (২১২)৪৮৭-৫৪০০ অথবা (৭১৮)৭৩০-৬৭৩০ নম্বরে। আপনার ভোট কেন্দ্র সম্পর্কে জানতে চাইলে এই লিংকে https://sforny.com.polls ক্লিক করে আপনার হাউজ নম্বর, রাস্তার নাম ও জিপ কোড দিয়ে সার্চ করলেই আপনার নিকটস্থ ভোট কেন্দ্র সম্পর্কে জানতে পারবেন। আপনি যদি এ্যাবসেন্টি ব্যালট’ এর মাধ্যমে ভোট দিতে চান তাহলেও উপরের যেকোন নম্বরে কল করতে পারেন অথবা nycabsentee.com এই ওয়েভসাইট থেকে সরাসরি ডাউনলোড ও প্রিন্ট করে পূরণ করতে পারবেন। তাছাড়া vote.nyc ওয়েভসাইটের বিভিন্ন লিংক থেকে আপনার যেকোন প্রশ্নের উত্তর পেতে পারেন। সবাইকে আবারো ভোটাধিকার প্রয়োগের আহবান জানাই।

লেখক : মূলধারার রাজনীতিক ও কম্যুনিটি বোর্ডের সদস্য।

@BITcomputerinc@gmail.com II 01/24/2021 II Queens, NY

 

Posted ১০:৪৬ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১

Weekly Bangladesh |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

গল্প : দুই বোন
গল্প : দুই বোন

(1502 বার পঠিত)

স্মরণে যাতনা
স্মরণে যাতনা

(743 বার পঠিত)

মানব পাচার কেন
মানব পাচার কেন

(490 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
Dr. Mohammed Wazed A Khan, President & Editor
Anwar Hossain Manju, Advisor, Editorial Board
Corporate Office

85-59 168 Street, Jamaica, NY 11432

Tel: 718-523-6299 Fax: 718-206-2579

E-mail: weeklybangladesh@yahoo.com

Web: weeklybangladeshusa.com

Facebook: fb/weeklybangladeshusa.com

Mohammed Dinaj Khan,
Vice President
Florida Office

1610 NW 3rd Street
Deerfield Beach, FL 33442

Jackson Heights Office

37-55, 72 Street, Jackson Heights, NY 11372, Tel: 718-255-1158

Published by News Bangladesh Inc.